সকল ট্রেনের সময়সূচি এবং কিভাবে ট্রেনের টিকিট কাটতে হয়

Table of Contents

ট্রেনের টিকিট কি?

 

ট্রেনের টিকিট হলো যাত্রীর জন্য ট্রেন ভ্রমণের অনুমতি পত্র বা সংরক্ষিত আসনের জন্য অনুমতি পত্র। যা দিয়ে যাত্রী ট্রেন ভ্রমণ করবে। ট্রেনের টিকিট ছাড়া ভ্রমণ দণ্ডনীয় অপরাধ। যার সাস্থী হিসাবে ৬ মাসের জেল সহ সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকা জরিমানা। কিন্তু বাংলাদেশে অনেকেই দেখবেন বিনা টিকিটে ভ্রমণ করে যা একেবারেই উচিত নয়। কেননা বাংলাদেশ সরকার রেল থেকে যা রাজস্ব পায় তা দিয়ে জনগণের উপকার করে বা জনগণের ভালোর কাজে লাগায়।

 

এখন যদি আপনি, আমি টিকিট ছাড়া ভ্রমণ করি তাতে আমার আপনার লাভ হবে কিন্তু সেই টাকা রেল পাবে না ফলস্বরূপ দেশের অর্থনীতি ঝুঁকির মুখে পড়বে। বাংলাদেশের রেল মন্ত্রণালয় থেকে সরকার প্রচুর পরিমাণে রাজস্ব পায়। যা আমার টাকা আপনার টাকা আমাদের সকলের টাকা। মোট কথা টিকিট ছাড়া আপনারা কেই ট্রেন ভ্রমণ করবেন না। মনে রাখবেন বিনা টিকিট রেল ভ্রমণ দণ্ডনীয় অপরাধ।

 

বাংলাদেশের সকল ট্রেনের সময় সূচি

ট্রেনে ভ্রমণের জন্য সবচেয়ে জরুরি ট্রেনের সময় জানা অর্থাৎ কোন ট্রেন কোন সময় আপনার নিকট স্টেশন থেকে আপনার গন্তব্যের দিকে যাত্রা শুরু করবে। ট্রেনের সময় সুচিকে দুই ভাগে ভাগ করা হয়েছে।

 

১. পূর্বাঞ্চলে ট্রেনের সময় সূচি

 

২. পশ্চিমাঞ্চল ট্রেনের সময় সূচি

 

আপনি এখান থেকে বাংলাদেশের সকল ট্রেনের সময় সূচি ডাউনলোড করতে পারবেন এবং আমাদের এখানে ট্রেনের যাবতীয় খবর পাবেন তাই আমাদের সাইটে নিয়মিত ভিসিট করে ট্রেনের সকল বিষয়ে অবগত থাকুন।

 

বাংলাদেশের সকল ট্রেনের সময় সূচি ডাউনলোড করতে নিচে ডাউনলোড বাটনে ক্লিক করুন।

 

পূর্বাঞ্চল ট্রেনের সময় সূচি

 

ডাউনলোড 

 

পশ্চিমাঞ্চল ট্রেনের সময় সূচি

 

ডাউনলোড

 

ট্রেনের টিকিট কাটার নিয়ম ২০২২

ট্রেনের টিকিট কাটার নিয়ম ২০২২

ট্রেনে ভ্রমণের জন্য সর্বপ্রথম আপনাকে ট্রেনের টিকিট কাটতে হবে। টিকিট বিহীন ভ্রমণ দণ্ডনীয় অপরাধ। আপনি নিশ্চয় অপরাধী হতে চাইবেন না। ট্রেনের টিকিট আপনি দুই ভাবে কাটতে পারবেন।

 

১. অনলাইনের মাধ্যমে।

 

২. টিকেট কাউন্টার থেকে।

 

টিকিট কাউন্টার থেকে কিভাবে টিকিট কাটতে হয়:

 

১. প্রথমে আপনি কোন ট্রেনে ভ্রমণ করবেন সেটি নির্বাচন করুন।

 

২. ট্রেনটি আন্তঃনগর নাকি মেইল কমিউটার সেটি দেখুন।

 

৩. এরপর মেইল কমিউটার হলে আপনি মেইল কাউন্টার থেকে আপনার গন্তব্যের টিকিটটি সংগ্রহ করুন।

 

অনলাইনে টিকিট কাটার নিয়ম:

 

১. অনলাইন থেকে আপনি দুইভাবে টিকিট কাটতে পারবেন ওয়েবসাইটের মাধ্যমে এবং অ্যাপ এর মাধ্যমে।

 

২. ওয়েবসাইটের মাধ্যমে টিকিট কাটতে হলে প্রথমে আপনাকে রেল টিকিট ওয়েবসাইটে যেতে হবে। ওয়েবসাইটটি হলো: এখানে ক্লিক করুন

 

৩. সেখানে আপনার যদি একাউন্ট থাকে তাহলে লগইন করুন অথবা একাউন্ট না থাকলে রেজিষ্টার করুন।

 

৪. লগইন/রেজিষ্টার হয়ে গেলে আপনি কোথায় যাবেন এবং কোন স্টেশন থেকে সেটি নির্বাচন করুন এবং আপনার ট্রেনটি নির্বাচন করুন।

 

৫. আপনি দেখতে পাবেন সেখানে কতগুলো সিট খালি আছে আপনার ইচ্ছা মত সিট সিলেক্ট করে নিন।

 

৬. এরপর পেমেন্ট অপশন এ গিয়ে আপনার সুবিধা মত বিকাশ, নগদ, ভিসা কার্ড দিয়ে পেমেন্ট সম্পূর্ন করুন।

 

৭. রেল সেবা অ্যাপ থেকে ট্রেনের টিকিট কাটতে প্রথমে রেল সেবা অ্যাপ ডাউলোড করুন। ডাউনলোড করতে নিচের ডাউনলোড বাটনে ক্লিক করুন।

 

ডাউনলোড 

 

৮. ডাউনলোড হয়েগেলে ইনস্টল করুন। অ্যাপটি ওপেন করুন।

 

৯. লগইন/রেজিষ্টার করুন।

 

১০. উপরে ওয়েবসাইটে যেভাবে টিকেট কাটা যায় অ্যাপটিতেও ঠিক একই ভাবে টিকেট কত যায়।

 

বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় কয়েকটি ট্রেনের নাম

 

বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় কয়েকটি ট্রেনের নাম নিচে দেওয়া হলো।

 

১. ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস।

 

২. দ্রুতযান এক্সপ্রেস।

 

৩. সুন্দরবন এক্সপ্রেস।

 

৪. তিস্তা এক্সপ্রেস।

 

৫. সিল্কসিটি এক্সপ্রেস।

 

৬. নীলসাগর এক্সপ্রেস।

 

৭. মহানগর প্রভাতী ।

 

৮. মহানগর গোধূলি।

 

৯. পাহাড়িকা এক্সপ্রেস।

 

১০. জয়ন্তিকা এক্সপ্রেস।

 

১১. যমুনা এক্সপ্রেস।

 

১২. তুর্না এক্সপ্রেস।

 

১৩. উপবন এক্সপ্রেস।

 

১৪. মেঘনা এক্সপ্রেস।

 

১৫. হাওর এক্সপ্রেস।

 

১৬. কিশোরগঞ্জ এক্সপ্রেস।

 

১৭. বিজয় এক্সপ্রেস।

 

১৮. মহুয়া এক্সপ্রেস।

 

১৯. বলাকা এক্সপ্রেস।

 

২০. পঞ্চগড় এক্সপ্রেস।

 

আজকের ট্রেনের সময় সূচি:

 

আজকের ট্রেনের সময় সূচি জানতে নিচের লিংকে ক্লিক করুন।

 

পূর্বাঞ্চল ট্রেনের সময় সূচি

 

ডাউনলোড 

 

পশ্চিমাঞ্চল ট্রেনের সময় সূচি

 

ডাউনলোড

 

ট্রেনের অগ্রিম টিকিট কিভাবে কাটতে হয়

ট্রেনের অগ্রিম টিকিট কিভাবে কাটতে হয়

অনেকেই জিজ্ঞেস করেন ভাই ট্রেনের অগ্রিম টিকিট কিভাবে কাটতে হয়। আসলে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট আপনি কাউন্টার থেকে কাটতে পারবেন না শুধু অনলাইনের মাধ্যমে কাটতে পারবেন। সর্বোচ্চ একসপ্তাহ আগে কাটতে পারবেন। কাউন্টার থেকে অগ্রিম টিকিট শুধু ঈদের সময় কাটতে পারবেন। এছাড়া কাউন্টার থেকে অগ্রিম টিকিট কাটতে পারবেন না।

 

ট্রেনের অগ্রিম টিকিট যেভাবে করবেন:

 

১. প্রথমে রেল সেবা অ্যাপ বা ই টিকেট ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে লগইন করে নিন।

 

২. আপনার গন্তব্য এবং কোন স্টেশন থেকে যাবেন সেটি নির্বাচন করুন।

 

৩. আপনার যাত্রার সময় বা তারিখ নির্বাচন করুন।

 

৪. এরপর আপনার ট্রেনটি নির্বাচন করে আপনার আসন নির্বাচন করুন।

 

৫. সবশেষে আপনার টিকিটের মূল্য প্রদান করুন।

 

পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচি

 

পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেন একটি আন্তঃনগর ট্রেন। আমরা সবাই কমবেশি জানি আন্তঃনগর এক্সপ্রেস ট্রেনের কিছু বাড়তি সুবিধা থাকে যেমন এসি কামরা এবং শুয়ে গন্তব্যে যাওয়ার মত বিছানা। পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচি।

 

_____________________________________

পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ঢাকা থেকে ছেড়ে যায় ২২:৪৫

 

পঞ্চগড় এক্সপ্রেস বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলাম রেলওয়ে স্টেশন বা পঞ্চগড় রেলওয়ে স্টেশন পৌঁছায় ০৮:৫০

________________________________

 

পঞ্চগড় এক্সপ্রেস পঞ্চগড় রেল স্টেশন থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছাড়ে ১২:৩০

 

পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ঢাকায় পৌঁছায় ২১:৫৫

 

_______________________________

 

কমলাপুর ট্রেনের সময়সূচি

 

কমলাপুর ট্রেনের সময়সূচি দেখতে নিচের লিংকে ক্লিক করুন।

 

কমলাপুর পূর্বাঞ্চল ট্রেনের সময় সূচি

 

ডাউনলোড 

 

কমলাপুর পশ্চিমাঞ্চল ট্রেনের সময় সূচি

 

ডাউনলোড

 

অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার সময়

অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার সময়

অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার একটি নির্দিষ্ট সময় রয়েছে। যেমন আপনি সকল ৬ টার আগে ওয়েবসাইট বা অ্যাপ থেকে কোনোভাবেই টিকিট কাটতে পারবেন না।

কিন্তু সকাল ৬ বাজার পর থেকে আপনি টিকিট কাটতে পারবেন।

 

দ্রুতযান এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচি

 

দ্রুতযান এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচি দেখুন:

 

ঢাকা থেকে ছাড়ে ২০:০০

 

পঞ্চগড় স্টেশনে পৌঁছায় ০৬:১০

 

পঞ্চগড় স্টেশন থেকে ছাড়ে ০৮:১০

 

ঢাকায় পৌঁছায় ১৮:৫৫

 

রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচি

 

ঢাকা থেকে ছাড়ে : ০৯:১০

 

রংপুর থেকে ছাড়ে: ২০:১০

 

মহানগর এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচি

 

ঢাকা থেকে ছাড়ে ০৭:৪৫

 

চট্টগ্রাম পৌঁছায় ১৪:০০

 

চট্টগ্রাম থেকে ছাড়ে ১৫:০০

 

ঢাকা পৌঁছায় ২১:২৫

 

একতা এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচি

 

ঢাকা থেকে ছাড়ে ১০:১০

 

জয়পুরহাট পৌঁছে ১৬:৫৩

 

পঞ্চগড় স্টেশন থেকে ছাড়ে ২১:১০

 

পাঁচবিবি স্টেশনে পৌঁছায় ০১:০৬

 

ঢাকা টু চট্টগ্রাম ট্রেনের সময়সূচি

 

আগে দেখে নিন কোন কোন ট্রেন ঢাকা টু চট্টগ্রাম যায়।

 

১. সুবর্ণ এক্সপ্রেস।

 

২. মহানগর প্রভাতী।

 

৩. পাহাড়িকা এক্সপ্রেস।

 

৪. মহানগর এক্সপ্রেস।

 

৫. মেঘনা এক্সপ্রেস।

 

৬. তুর্ণা।

 

৭. বিজয় এক্সপ্রেস।

 

আরও কয়েকটি আছে। এবার ঢাকা টু চট্টগ্রাম ট্রেনের সময়সূচি দেখুন নিচের লিংকে ক্লিক করুন।

 

ডাউনলোড 

 

ট্রেন ধর্মঘট কি?

 

ট্রেন ধর্মঘট হলো কোনো নির্দিষ্ট দাবি আদায়ের জন্য ট্রেন মন্ত্রণালয়ের কাছে দাবি। এবং সকল ট্রেন চলাচল বন্ধ করা। ধর্মঘট বলতে কোনো কিছুর জন্য একযোগে দাবি করা যতক্ষণ পর্যন্ত না তাদের দাবি আদায় হচ্ছে ততক্ষণ পর্যন্ত তারা সেই জায়গা ছাড়ব না। কিছুদিন আগেও ট্রেন ধর্মঘট হলো। ট্রেনের এক টিকিট চেকার কে দুইজন পুলিশ বেধর বেটানোর অভিযোগে সকল ট্রেনের স্টাফরা মন্ত্রণালয়ের কাছে বিচাই চাই দাবি জানিয়ে ধর্মঘট করেছে।

 

সেই ঘটনায় সেই দুইজন পুলিশকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে মন্ত্রণালয়। 

  • Leave a Comment