আজকে আমরা আপনাদের শিখাব কিভাবে বাংলা ক্যাপশন ফেসবুকের ছবির জন্য আপনার সেলস বৃদ্ধি করবেন

বাংলা ক্যাপশন ফেসবুকের ছবির জন্য 

আজকে আমরা আপনাদের শিখাব কিভাবে বাংলা ক্যাপশন ফেসবুকের ছবির জন্য আপনার সেলস বৃদ্ধি করবেন

আজকের আলোচনাটি তাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ যারা অলরেডি ফেসবুকে বিভিন্ন পন্য মারকেটিং চান তাদের জন্য। বর্তমানে ইন্টারনেট ছাড়া একজন মানুষ কল্পনা করা কঠিন তাই ফেসবুক ইউটিউব বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া সময় কাটায় বেশি এগুলো জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। এখানে সবাই সময় কাটাতে পছন্দ করে আর এই জায়গাগুলো কে আপনি যদি ব্যবসায়ী কাজে খাটান তাহলে কিন্তু এখান থেকে ভালো একটা আর্নিং করা সম্ভব। আজকে আমরা শিখাবো কিভাবে আপনার প্রোডাক্ট মার্কেটিং করবেন সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে।

অ্যানাউন্সমেন্ট সেকশন

১/ অ্যানাউন্সমেন্ট সেকশন ( বাংলা ক্যাপশন ফেসবুকের ছবির জন্য )

অ্যানাউন্সমেন্ট সেকশন বলতে আমরা বুঝি একটা প্রোডাক্ট আমরা যখন মার্কেটিং করবো তখন তার ইন্টরো উপরে লিখতে হয় বাংলা ক্যাপশন ফেসবুকের ছবির জন্য কারণ একজন মানুষ আকৃষ্ট হবে ওইটার বিবরণ অথবা ইমেজের উপর ছবিগুলো দেখে আর তাই অ্যানাউন্সমেন্ট এরকম ভাবে লিখতে হবে। যাতে তারা অল্প কিছু কথার বিনিময় আপনার প্রোডাক্ট সম্পর্কে আইডিয়া পেয়ে যায় এবং বুজতে পারেন।

২/ এবাউট সেকশন

অ্যাবাউট সেকশনটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ এ কারণে কারণ একজন যখন একটা প্রোডাক্ট ক্রয় করার জন্য আকৃষ্ট হয় তখন সেই প্রোডাক্টটি বিস্তারিত সে জানতে আগ্রহ প্রকাশ করে। আর সেটা যদি এবাউট সেকশন সুন্দরভাবে লেখা না থাকে তাহলে গ্রাহক এই পণ্যটি ক্রয় করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেনা । আপনি সুন্দর করে ওই পণ্যের বিস্তারিত বিবরণ অ্যাবাউট সেকশনে লিখে দিতে হয়।

৩/ কমেন্ট সেকশন

কমেন্ট সেকশন এটা খুবই একটি গুরুত্বপূর্ণ অনেকেই আমরা পোস্ট করার পরে আমরা আর ঐ পোষ্টের ব্যাপারে খোঁজ খবর রাখি না। যার কারণে অনেক সময় অনেক কাস্টমার হতাশ হয়। কারণ তারা কোন তথ্য ঐ খানে না পেলে কমেন্ট বক্সে গিয়ে কমেন্ট করে জানতে চাই ওই পণ্যটি ব্যাপারে । তাই সাথে সাথে যদি ওই পণ্যের ব্যাপারে ওইখানে কাস্টমার এর চাহিদা অনুযায়ী উত্তর না দেয়া হয় তাহলে কাস্টমার বিভ্রান্ত হন। কমেন্ট সেকশনে সবাই একটু ঘুরে দেখে এই পণ্যের ব্যবহারে জনগণ কি মতামত করছে তা অনেকেই খোঁজ-খবর রাখেন তাই কমেন্ট সেশনটা আপনারা সবসময় গুরুত্ব দিবেন। তাহলে আপনার পণ্যের সেল বৃদ্ধি পাওয়ার জন্য একটি ক্রেডিট আপনি পেয়ে যাবেন। আরেকটা জিনিস সবসময় মনে রাখবেন আপনারা কমেন্ট সেকশন এর প্রথম কমেন্টটা আপনারা নিজেরা করবেন তাহলে আপনারা সবচেয়ে ভালো একটি রেসপন্স পাবেন কমেন্ট সেকশন এর প্রথম কমেন্টে কিরকম হতে পারে ওই পণ্যের লিংকটি যদি এখানে দিয়ে দেন তাহলে দেখা যায় কাস্টমারের খুঁজে পেতে আর অসুবিধা হবে না আপনার সাথে সাথে ঐ লিংকে গিয়ে আপনার পণ্যটি ক্রয় করার চান্স থাকে।

৪/ প্রোমো কোড ডিসকাউন্ট ক্যাম্পেইন

আমরা সবাই সবসময় ছার বার ডিসকাউন্ট পছন্দ করি। তাই আপনারা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ধরনের ক্যাম্পেইন পরিচালনা করতে পারে। এই ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে অনেক কাস্টমার আপনারা পেয়ে যাবেন অনেকেই আগ্রহ করে বিভিন্ন বিশেষ সময়গুলো একটা ছাড় এর আশা করে আপনি যদি ওই ক্যাম্পেইনে কিছু ছাড় দিয়ে থাকেন তাহলে আপনার প্রোডাক্ট সেল বৃদ্ধি পেয়ে যাবে।

অতএব আপনারা বিভিন্ন সময় বিশেষ একটা স্যারের ব্যাবস্থা রাখবেন যেমন এলিভেন, এলিভেন টুয়েলভ, টুয়েলভ এই বিশেষ দিনগুলো যদি আপনারা বিভিন্ন ধরনের ছাড় রাখেন তাহলে দেখা যায় আপনার সেল বৃদ্ধি পেয়ে যাবে।

 

৫/ ভিডিও লাইভ

ভিডিও লাইভ একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় অনেক সময় অনেকে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে না বিভিন্ন আর্টিকেল বড় বড় লেখা পড়তে। তাদের জন্য ভিডিওর মাধ্যমে যদি আপনি কোন প্রোডাক্ট সম্পর্কে বার্তা প্রদান করেন তাহলে তারা সবচেয়ে বেশি খুশি হয়। অনেকেই ভিডিও দেখতে পছন্দ করেন তাদের জন্য ভিডিও মার্কেটিং বা ভিডিও লাইভ করতে পারেন। উপকার হবে তাই অনেকেই আছেন যারা বড় বড় আর্টিকেল লেখা ডেসক্রিপশন এগুলো পড়ে না কিন্তু ভিডিও দেখে তাদের জন্য ভালো হবে।

৬/ কুইজ

কুইজ দেওয়ার মাধ্যমে কাস্টমারদের কে অ্যাক্টিভ রাখা বিভিন্ন গ্রুপ বিভিন্ন পেজ তাই সবসময় কুইজ এর ব্যাবস্তা রাখে। অনেকেই কুইসে সংক্ষিপ্ত অ্যানসার দিতে পছন্দ করে বিভিন্ন মানুষ আছে যারা কমেন্টে বড় করে লেখা পছন্দ করেনা। তাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি কাজ হয়ে দাঁড়ায় কুইজ। বাংলা ক্যাপশন ফেসবুকের ছবির জন্য

অতএব, আমরা বুজতে পারলাম কিভাবে ফেসবুকে আপনার সেলস বৃদ্ধি করবেন এই টিপস গুলো যদি ফলো করেন তা হলেই আপনে ফেসবুক মার্কেটিং বাংলা ক্যাপশন ফেসবুকের ছবির জন্য

  • Leave a Comment